chapter 1 Porimap

পরিমাপ- ক্লাস ৯ প্রশ্ন উত্তর | Measure Class 9 Question Answer

Table of Contents

পরিমাপ- ক্লাস ৯ প্রশ্ন উত্তর 

Measure Class 9 Question Answer

 1. ভৌত রাশি কাকে বলে? কয়েকটি ভৌত রাশির উদাহরণ দাও?

উত্তরঃ যে সমস্ত প্রাকৃতিক বিষয়কে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে পরিমাপ করা যায় তাদের ভৌত রাশি বলা হয়। 

উদাহরণ: দৈর্ঘ্য, ভর, উন্নতা, কার্য, সরণ, বেগ, স্মরণ, বল প্রভৃতি হল ভৌত রাশি।

2. সমস্ত প্রাকৃতিক বিষয়কে কি ভৌত রাশি বলা যায়—উদাহরণ সহযোগে ব্যাখ্যা করো?

উত্তরঃ আমরা বিভিন্ন প্রাকৃতিক বিষয় দেখি বা অনুভব করি। কিন্তু এদের মধ্যে সবকটি পরিমাপযোগ্য নয়। যেমন- দয়া, স্নেহ, রাগ প্রভৃতি। যেহেতু এই সমস্ত প্রাকৃতিক বিষয় পরিমাপযোগ্য নয়, তাই এদের ভৌত রাশি বলা হয় না। আবার দৈর্ঘ্য, ভর, সময় প্রভৃতি প্রাকৃতিক বিষয় পরিমাপযোগ্য, তাই এদের ভৌত রাশি বলা হয়। সুতরাং, সমস্ত প্রাকৃতিক বিষয়কে ভৌত রাশি বলা যায় না।

3. স্কেলার রাশি কাকে বলে? কয়েকটি স্কেলার রাশির উদাহরণ দাও ?

উত্তরঃ যে সমস্ত ভৌত রাশির শুধুমাত্র মান আছে কিন্তু অভিমুখ নেই তাদের স্কেলার রাশি বলা হয়।

 উদাহরণ: দৈর্ঘ্য, ভর, উন্নতা, কার্য প্রভৃতি হল স্কেলার রাশি।

4. ভেক্টর রাশি কাকে বলে? উদাহরণ দাও?

উত্তরঃ যে সমস্ত ভৌত রাশির মান ও অভিমুখ দুই ই আছে এবং যাদের যোগ ভেক্টর যোগের নিয়মানুযায়ী হয়, তাদের ভেক্টর রাশি বলা হয়।

 উদাহরণ; সরণ, বেগ, ত্বরণ, বল প্রভৃতি হল ভেক্টর রাশি।

5. স্কেলার ও ভেক্টর রাশির মধ্যে পার্থক্য লেখো?

উত্তরঃ  স্কেলার ও ভেক্টর রাশির মধ্যে পার্থক্য হল-

স্কেলার

ভেক্টর

1.
স্কেলার রাশির শুধুমাত্র মান আছে, অভিমুখ
নেই।

1.
ভেক্টর রাশির মান ও অভিমুখ দুই-ই আছে।

2.
সমজাতীয়
স্কেলার রাশির যোগ, সাধারণ বীজগাণিতিক নিয়মানুযায়ী হয়।

 

2.
সমজাতীয়
ভেক্টর রাশির যোগ, সাধারণ বীজগাণিতিক নিয়মানুযায়ী হয়  না।

3.
দুইটি স্কেলার রাশির গুণফল সর্বদা একটি স্কেলার
রাশি হয়।

 

3.
দুইটি ভেক্টর রাশির গুণফল একটি স্কেলার অথবা
ভেক্টর রাশি হতে পারে।

6. কোনো ভৌত রাশির মান ও অভিমুখ থাকলেই কি তাকে ভেক্টর রাশি বলা হয় ? 

অথবা, তড়িৎপ্রবাহের মান ও অভিমুখ দুই-ই আছে, কিন্তু তড়িৎপ্রবাহমাত্রা স্কেলার রাশি কেন?

উত্তরঃ  কোনো ভৌত রাশির মান ও অভিমুখ থাকলেই যে তাকে ভেক্টর রাশি বলা যাবে, তা নয়। 

যেমন—তড়িৎপ্রবাহ। তড়িৎপ্রবাহের মান ও অভিমুখ দুই-ই আছে, কিন্তু তড়িৎপ্রবাহের যোগ ভেক্টর যোগের নিয়মানুযায়ী হয় না। তাই তড়িৎপ্রবাহ ভেক্টর রাশি নয়, এটি স্কেলার রাশি।

7. ‘1’ kg পরিমাণ আলুর বাজারদর 20 টাকা’— এই বাক্যে আলু, আলুর পরিমাণ, এদের মধ্যে কোনটি ভৌত রাশি, কোনটিই বা নয়—কেন তা বুঝিয়ে লেখো।

উত্তরঃ  বাক্যটিতে আলুর ভর 1 kg, অর্থাৎ এটি পরিমাপযোগ্য রাশি। তাই আলুর ভর হল একটি ভৌত রাশি । আলু একটি পদার্থ, যা পরিমাপযোগ্য নয়। তাই এটি ভৌত রাশি নয়।

8. নিম্নলিখিত রাশিগুলির মধ্যে কোনটি স্কেলার ও কোটি ভেক্টর তা উল্লেখ করো : দৈর্ঘ্য, সময়, ভর, ওজন, বল, দ্রুতি, বেগ, ত্বরণ, ভরবেগ, কার্য, ক্ষমতা, চাপ, সরণ, কম্পাঙ্ক, ঘনত্ব।

উত্তরঃ  স্কেলার রাশি: দৈর্ঘ্য, সময়, ভর, দ্রুতি, কার্য, ক্ষমতা, চাপ, কম্পাঙ্ক, ঘনত্ব।

ভেক্টর রাশি : ওজন, বল, বেগ, ত্বরণ, ভরবেগ, সরণ।

9. একক কাকে বলে ?

উত্তরঃ  কোনো ভৌত রাশি পরিমাপ করার ক্ষেত্রে, ওই ভৌত রাশির একটি সুবিধাজনক ও নির্দিষ্ট মানকে প্রমাণ ধরে, তুলনামূলকভাবে ওই ভৌত রাশির পরিমাপ করা হয়। ওই নির্দিষ্ট মানকে পরিমাপের একক বলা হয় ৷

10. এককের প্রয়োজনীয়তা কী ?

উত্তরঃ বৈজ্ঞানিক পরীক্ষায় পরিমাপ উল্লেখ করা আবশ্যক। সেইজন্য কোনো ভৌত রাশির পরিমাপের ক্ষেত্রে এককের প্রয়োজন। কোনো ভৌত রাশিকে প্রকাশ করা হয় সাংখ্যমান ও এককের সাহায্যে। একক ছাড়া পরিমাপ সম্ভব নয়। বিভিন্ন ভৌতরাশির মধ্যে সম্পর্ক স্থাপন বা ভৌত রাশি সম্পর্কিত সমীকরণের সঠিকতা যাচাই-এর জন্যও এককের প্রয়োজন।

11. নির্দিষ্ট রাশি পরিমাপের জন্য একটি নির্দিষ্ট একক থাকা প্রয়োজন—একথা তুমি সমর্থন কর কি না তা উদাহরণসহ বুঝিয়ে দাও ?

উত্তরঃ  হ্যাঁ, নির্দিষ্ট রাশি পরিমাপের জন্য অবশ্যই একটি নির্দিষ্ট একক থাকা প্রয়োজন।

উদাহরণস্বরূপ, ভাবা যেতে পারে দৈর্ঘ্য পরিমাপের প্রসঙ্গ। দৈর্ঘ্যের কোনো নির্দিষ্ট একক না থাকলে যে-কোনো দুটি জায়গা, যেমন কলকাতা থেকে দিল্লির দূরত্ব, এক-একজনের পরিমাপে এক-এক রকম হত। কিন্তু তুলনীয় কোনো দূরত্ব বুঝতে আমাদের খুব একটা অসুবিধা হয় না। যেমন, যদি কারও কলকাতা থেকে বর্ধমানের দূরত্ব সম্বন্ধে মোটামুটি একটা ধারণা থাকে, তবে কলকাতা থেকে দিল্লির দূরত্ব সেই দূরত্বের তুলনায় কতগুণ, তা বলা হলে, কলকাতা থেকে দিল্লির দূরত্ব সম্বন্ধে একটা ধারণা জন্মায়। এক্ষেত্রে কলকাতা থেকে বর্ধমানের দূরত্ব হল একক দূরত্ব। এইভাবে যে-কোনো রাশির পরিমাপের ক্ষেত্রেই একটি একক থাকা প্রয়োজন।

12. প্রাথমিক বা মৌলিক বা মূল একক কাকে বলে? 

উত্তরঃ  যে সমস্ত ভৌত রাশির একক পরস্পরের ওপর নির্ভরশীল নয়, অর্থাৎ স্বাধীনভাবে গঠন করা হয়েছে এবং যাদের সাহায্যে অন্যান্য ভৌত রাশির একক গঠন করা যায়, সেই সমস্ত ভৌত রাশির এককগুলিকে মৌলিক একক বলা হয়।

13. SI-তে প্রাথমিক এককগুলি কী কী ?

উত্তরঃ  SI-তে দৈর্ঘ্য, ভর, সময়, তাপমাত্রা, তড়িৎপ্রবাহ, দীপন প্রাবল্য ও পদার্থের পরিমাণ—এই ভৌত রাশিগুলির মূল বা প্রাথমিক এককগুলি যথাক্রমে মিটার, কিলোগ্রাম, সেকেন্ড, কেলভিন, অ্যাম্পিয়ার, ক্যান্ডেলা ও মোল।

Important Notes:

 SI-তে সাতটি মূল একক ছাড়াও সমতল কোণ (plane angle) ও ঘনকোণ (solid angle) এই দুটি ভৌত রাশির একককে সম্পূরক একক (supplementary units) হিসেবে মর্যাদা দেওয়া হয়েছিল। সমতল কোণের একক হল রেডিয়ান (rad) ও ঘনকোণের একক হল স্টেরেডিয়ান (sr)। কিন্তু 1995 খ্রিস্টাব্দে এই দুটি একককে সম্পূরক এককের শ্রেণি থেকে বাদ দিয়ে লম্ব এককের শ্রেণিভুক্ত করা হয়।

14. দৈর্ঘ্য, ভর ও সময়ের একককে মৌলিক একক বলা হয় কেন ?

উত্তরঃ  দৈর্ঘ্য, ভর ও সময়ের একক হল মৌলিক একক, কারণ— 

  1.  দৈর্ঘ্য, ভর ও সময়ের একক পরস্পরের ওপর নির্ভরশীল নয়, অর্থাৎ স্বাধীনভাবে গঠিত হয়।
  2. এই তিনটি ভৌত রাশির একককে বিশ্লেষণ করে সরলতর আকারে প্রকাশ করা যায় না।
  3. এই তিনটি ভৌত রাশির এককের সাহায্যে অন্যান্য ভৌত রাশির একক গঠন করা যায়।

 

15. লব্ধ একক কাকে বলে? উদাহরণসহ বুঝিয়ে দাও?

উত্তরঃ  যে সমস্ত ভৌত রাশির একক, এক বা একাধিক মূল এককের সাহায্যে গঠিত হয়, সেই সমস্ত ভৌত রাশির এককগুলিকে লব্ধ একক বলা হয়। যেমনবেগ, ত্বরণ, ভরবেগ, বল, কার্য প্রভৃতি রাশির একক হল লব্ধ একক

 উদাহরণ: বেগ হল কোনো বস্তুর সরণের হার। বেগের একক যে লম্ব একক তা নিম্নলিখিত পদ্ধতিতে বোঝা যায়।

বেগ=সরণ/সময়

বেগের একক =(সরণের একক)/(সময়ের একক)=(দৈর্ঘ্যের একক)/(সময়ের একক)

 সুতরাং, বেগের একক দৈর্ঘ্য ও সময় এই দুটি মৌলিক এককের সাহায্যে গঠিত, তাই এটি লক্ষ একক।

16. নীচের রাশিগুলির মধ্যে কোনটির একক মৌলিক ও কোনটির একক লব্ধ তা উল্লেখ করো: ক্ষেত্রফল, আয়তন, সরণ, বেগ, ত্বরণ, বল, কার্য, শক্তি, ক্ষমতা, ভরবেগ, ভর, ওজন, উচ্চতা, ঘনত্ব, তরঙ্গদৈর্ঘ্য, পর্যায়কাল।

উত্তরঃ  মৌলিক এককবিশিষ্ট রাশি: সরণ, ভর, উচ্চতা, তরঙ্গদৈর্ঘ্য,পর্যায়কাল।

লম্ব এককবিশিষ্ট রাশি: ক্ষেত্রফল, আয়তন, বেগ, ত্বরণ, বল, কার্য, শক্তি, ক্ষমতা, ভরবেগ, ওজন, ঘনত্ব ।

17.  দুটি মৌলিক একক দ্বারা গঠিত একটি লম্ব এককের উদাহরণ দাও?

উত্তরঃ   দুটি মৌলিক একক দ্বারা গঠিত একটি লব্ধ একক হল দ্রুতির একক।

দ্রুতির একক = (অতিক্রান্ত দূরত্বের একক)/(সময়ের একক)=(দৈর্ঘ্যের একক /সময়ের একক)

 দ্রুতির একক হল দৈর্ঘ্য ও সময় এই দুটি মৌলিক রাশির এককের সাহায্যে গঠিত একটি লম্ব একক।

 

  1. জীবন ও তার বৈচিত্র- ক্লাস ৯ সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন উত্তর—–> Click here

  2. জীবন ও তার বৈচিত্র্য প্রশ্ন উত্তর ক্লাস ৯——-> Click Here

  3. 3.গ্রহরুপে পৃথিবী– CLASS 9 SHORT Question

 

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *